Thursday, January 23

ইসলামে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের স্থান নেই: শফিক চৌধুরী



বিশ্বনাথ প্রতিনিধি:: :: সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সাংসদ শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেছেন, রমজানের তাৎপর্য থেকে শিক্ষা অর্জন করে ধর্ম ব্যবসায়ীদের প্রতিহত করতে হবে। শান্তির ধর্ম ইসলামে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের কোন স্থান নেই। তাই ধর্মের নামে যারা বোমাবাজি করে, আর ক্ষমতায় যাওয়ার লোভে জীবন্ত মানুষকে পুড়িয়ে মারে ও মানুষের সম্পদ লুটপাট করে তারা কখনই ইসলাম প্রেমিক বা দেশপ্রেমিক হতে পারে না।

সিলেটের বিশ্বনাথে উপজেলার দেওকলস ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ইফতার মাহফিল পূর্ব প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, ‘ইসলামিক ফাউন্ডেশন’ স্থাপন করে জাতির জনক বঙ্গবঙ্গু শেখ মুজিবুর রহমান ইসলাম ধর্মের খেদমত করার যে কাজ শুরু করে ছিলেন তা এখন তাঁরই সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র নেতৃতে চলমান রয়েছে। অন্যান্য ধর্মের মানুষও জননেত্রী শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বে পরিচালিত রাষ্ট্রে সমভাবে শান্তিপূর্ণ ও নিরাপত্তার সাথে নিজ নিজ ধর্ম পালন করছেন। তাই এধারা অব্যাহত রাখতে আসন্ন নির্বাচনেও নৌকা প্রতিকে ভোট দিয়ে সারা দেশে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীদেরকে বিজয়ী করে মহাকাশ কন্যা শেখ হাসিনাকে আবারো প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করতে হবে।

বুধবার বিকেলে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম জুয়েলের উদ্যোগে এ প্রতিনিধি সভার আয়োজন করা হয়। এতে মিলাদ পরিচালনা করেন দেওকলস মাইজগ্রাম দাখিল মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা লুৎফুর রহমান ও দোয়া পরিচালনা করেন ফুলতলী এতিমখানা মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক হাফিজ আশিকুর রহমান।

দেওকলস ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল মোমিনের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক দিলোয়ার হোসেন রুপন ও যুগ্ম সম্পাদক জাফর ইকবাল জুনেদের যৌথ পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আমির আলী চেয়ারম্যান, সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম জুয়েল, উপজেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল হান্নান বদরুল, যুগ্ম সম্পাদক কাছা মিয়া মেম্বার, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শীতল বৈদ্য। বক্তব্য রাখেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আলী আফছর মাস্টার, যুবলীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান মিনু, সাধারণ সম্পাদক সঞ্চিত আচার্য্য, সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সুহেল খান, সাধারণ সম্পাদক রাশেদ আহমদ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মোহাম্মদ শামসুদ্দোহা পিপিএম, পরিদর্শক (তদন্ত) দুলাল আকন্দ, উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক আবদুল মতিন, কার্যনির্বাহী সদস্য আহমদ আলী, আওয়ামী লীগ নেতা আপ্তাব আলী, ফরিদ মিয়া, নেছাওর আলী, ছৈদুল ইসলাম, নিশি কান্ত পাল, শওকত আলী, কৃষক লীগ নেতা আলী হোসেন খান, বিভাগীয় বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সাংগঠনিক সম্পাদক কবিরুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা আঙ্গুর মিয়া, কদর আলী, লনি চন্দ্র, তাহির আলী বাবুল, সেলিম আহমদ, পারভেজ আহমদ, ফিরুজ মিয়া, মোঃ নূরুজ্জামান, উপজেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি শিপন আহমদ, সুনীল বৈদ্য, ছাত্রলীগ নেতা কামরুল ইসলাম, রাকু মালাকারসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও দলীয় বিভিন্নস্তরের নেতাকর্মী।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *