Saturday, January 25

ওসমানীনগরে কুশিয়ারা ডাইক ভেঙ্গে নিন্মাঞ্চল প্লাবিত,৩০ হাজার মানুষ বানিবন্দি!



শেখ ফয়ছল আহমদ ও শাহীন আহমদ চৌধুরী::
অব্যাহত বৃষ্টি পাহাড়ি ঢল ও কুশিয়ারা নদীর পানি বিপদ সীমার উপর দিয়ে অতিক্রম করায় ওসমানীনগরে কুশিয়ারা ডাইক দুটি স্থান ভেঙ্গে ও একাধিক স্থান দিয়ে পানি উপছে ১০টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। শনিবার দুপুরে উপজেলার সাদীপুর ইউপির সৈয়দপুর গ্রামের ডাইকের কালভার্ট পানির স্রোতে ভেঙ্গে, লামাতাজপুর ও পার্শবর্তী পশ্চিম এলাকায় ডাইকের বিভিন্ন স্থান দিয়ে পানি উপছে ডাইকের ভেতরের ১৩টি গ্রাম প্লাবিত হয়।
প্লাবিত গ্রাম গুলো হলো, লামা তাজপুর, সৈয়দপুর, সুন্দিকলা, ইসলামপুর, সম্মানপুর, পূর্ব কালনিচর, উত্তর কালনিচর, দক্ষিণ কালনিচর, চাতলপাড়, রহমতপুর, পূর্ব তাজপুর, নবীগঞ্জের গালিমপুর, মাধবপুর। স্থানীয় জনসাধারণ জানান, যে ভাবে কুশিয়ারা নদী থেকে ডাইকের ভেতরের গ্রাম গুলোতে পানি ঢুকছে রোববারের মধ্যে সাদীপুর ইউপির পশ্চিম অঞ্চলের অবশিষ্ট গ্রাম ও উরপুর ইউপির বেশ কিছু গ্রাম প্লাবিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।
এদিকে উপজেলার পশ্চিম সাদীপুরের গ্রাম সহ পার্শবর্তী নবীগঞ্জ ও জগন্নাথপুরের সাথে যোগাযোগের সব কটি সড়ক পানিতে তলিয়ে যাওয়া তিন উপজেলার গ্রাম গুলোর মানুষের সরাসরি সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রযেছে। এদিকে আজ দুপুরে সাদিপুরের ভেঙ্গে যাওয়া কুশিয়ারা ডাইক ও প্লাবিত এলাকা পরিদর্শন করেন, পানি উন্নয়ন বোর্ডের সিলেটের নির্বাহী প্রকৌশলী সিরাজুল ইসলাম, ওসমানীনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মইনুল হক চৌধুরী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আনিছুর রহমান।সুরিকোনা গ্রামের গ্রামের বাসিন্দা সুয়েব আহমদ জানান, কুশিয়ারা ডাইক ভেঙ্গে আমাদের গ্রাম সহ এ অঞ্চলের সবকটি গ্রামের মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। ক্ষতিগ্রস্থ সাদীপুর ইউপির ২নং ওয়ার্ড সদস্য সোনা মিয়া গাজী কুশিয়ারা বলেন, প্লাবিত এলাকার সবকটি রাস্তা পানিতে তলিয়ে গিয়ে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছেওসমানীনগর, জগন্নাথপুর ও নবীগঞ্জ এলাকার কয়েক হাজার মানুষ পানিবন্ধি রয়েছেন।
সাদীপুর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রবের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন,আমি এলাকাবাসীকে নিয়ে ভাঙ্গন রোধে সাধ্য মত চেষ্টা করে ব্যার্থ তাই উধ্বর্তন কতৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

ওসমানীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আনিছুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন,আমি কুশিয়ারা ডাইকের ভাঙ্গন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করে উধ্বর্তন কতৃপক্ষকে অবহিত করেছি। এতে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের উদাসীনতার কারনে ডাইক ভেঙ্গে এলাকা বন্যা কবলিত হয়েছে।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *