Wednesday, January 22

কাইজু ও রোবটের লড়াই স্টার সিনেপ্লেক্সে



বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনি ও মারকুটে ছবি ‘প্যাসিফিক রিম’-এর কথা নিশ্চয়ই ভুলে যাননি দর্শক। ২০১৩ সালে মুক্তি পাওয়া ছবিটি যেভাবে মাতিয়েছিলো তাতে বেশ ভালোভাবেই মনে থাকার কথা সবার।

একদিকে অদ্ভুত দৈত্যাকার পশু কাইজু, অন্যদিকে মানুষ-নিয়ন্ত্রিত রোবট। সমুদ্রের নিচ থেকে উঠে আসা কাইজু আক্রমণ করে পৃথিবীকে। যার আঘাতে পৃথিবী ধ্বংসের সম্মুখীন হয়। এর মোকাবিলা করতে মানুষ আবিষ্কার করে জায়েগারস নামক মানুষ-নিয়ন্ত্রিত রোবট। এই রোবট নিয়ন্ত্রিত হয় দু’জন পাইলট দিয়ে, যারা একে অপরের সঙ্গে মানসিকভাবে যুক্ত থাকে। ছবির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন জাপানি অভিনেত্রী রিঙ্কো কিকুচি, ইদ্রিস এলবা, বার্ন গুরমান, চার্লি ডে প্রমুখ।

১৯০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বাজেটের ছবিটি আয় করে ৪১১ মিলিয়ন ডলার। পাশাপাশি মন জয় করে সমালোচকদেরও। সাফল্যের রেশ কাটার আগেই নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ঘোষণা দিয়েছিলো সিরিজের পরবর্তী ছবির। যার নাম দেওয়া হয়েছিলো ‘প্যাসিফিক রিম ২’। ছবির পরিকল্পনাও এগিয়েছিলো অনেকখানি। কিন্তু হঠাৎ থেমে যায় সব। পড়ে যায় লম্বা একটি বিরতি। পাঁচ বছরের বিরতির পর অবশেষে নির্মিত হয় নতুন ছবি। যার নাম ‘প্যাসিফিক রিম আপরাইজিং’। নামের সঙ্গে বদলে যায় পরিচালক ও অভিনেতা-অভিনেত্রীদের তালিকাও।

গুয়েলের্মো দেল তোরোর পরিবর্তে এ ছবি পরিচালনার দায়িত্ব পান স্টিভেন এস. ডিনাইট। অভিনয়শিল্পীদের তালিকায় আছেন জন বোয়েগা, স্কট ইস্টউড, জিং তায়ান, রিংকো কিকুচি, চার্লি ডে প্রমুখ।

শুক্রবার (২৩ মার্চ) আন্তর্জাতিকভাবে মুক্তি পেতে যাচ্ছে ‘প্যাসিফিক রিম আপরাইজিং’। একই দিনে ঢাকার স্টার সিনেপ্লেক্সে মুক্তি পাবে ছবিটি।

ছবির গল্প এগিয়ে যাবে আগের ছবির পথ ধরেই। বিধ্বংসী কাইজুরা আবারও পৃথিবীতে ফিরে আসার পথ খুঁজে পাবে ও ইয়াগার পাইলটদের আরও একবার ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে তাদের সঙ্গে লড়াইয়ে।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *