Sunday, January 19

কানাডা সফর শেষে ঢাকার পথে প্রধানমন্ত্রী



টরোন্টোর পিয়ারসন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে কানাডার স্থানীয় সময় সোমবার বেলা ২টা ৫০ মিনিটে এমিরেটস্ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটে দেশের উদ্দেশ্য রওনা হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

বিমানবন্দরে শেখ হাসিনাকে বিদায় জানান কানাডায় বাংলাদেশের হাই কমিশনার মিজানুর রহমান ও কানাডার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পরিচালক জনাথন সুভে।

সকালে কানাডার মিয়ানমার বিষয়ক দূত বব রে, কানাডার সাসকাচোয়ান প্রদেশের উপ প্রধানমন্ত্রী জেরেমি হ্যারিসন এবং কমার্শিয়াল কোঅপারেশন অব কানাডার প্রেসিডেন্ট মার্টিন জাবলোকি তার শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

দুবাইয়ে যাত্রবিবরতি করে মঙ্গলবার রাতে ঢাকা পৌঁছানোর কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর।

কানাডার প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণে জি-সেভেন আউটরিচ সম্মেলনে যোগ দিতে শুক্রবার দুপুরে কেবেকে পৌঁছান শেখ হাসিনা।

বিশ্ব অর্থনীতির সাত পরাশক্তির জোট জি-সেভেনের সম্মেলনের পাশাপাশি আঞ্চলিক উন্নয়ন ও অর্থনৈতিক অগ্রগতির বিষয়ে আলোচনার জন্য জোটের বাইরে থেকে বিভিন্ন দেশকে আলাদা বৈঠকে আমন্ত্রণ জানানো হয়। একেই বলা হয় জি-সেভেন আউটরিচ মিটিং।

এবার এই সম্মেলনে অংশ নিতে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও কয়েকটি দেশের সরকারপ্রধান ও কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রধানকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে কানাডা সরকার।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর আগে ২০১৬ সালে জাপানে এবং ২০০১ সালে ইতালিতে জি সেভেন আউটরিচ সম্মেলনে যোগ দেন। কানাডা ছাড়া জি সেভেনের বাকি ছয় সদস্য দেশ হলো- ফ্রান্স, জার্মানি, জাপান, ইতালি, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *