Tuesday, January 21

কোটা কমিটির প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে



সরকারি চাকরির কোটা সংস্কারে মন্ত্রীপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলমের নেতৃত্বে একটি কমিটির প্রস্তাবনা প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১০ মে) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা জানিয়েছেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মোজাম্মেল হক খান।

তিনি বলেন, বুধবার এই কমিটির রূপরেখা তৈরি করা হয়েছে । আজ (বৃহস্পতিবার) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে এই প্রস্তাবনা। প্রধানমন্ত্রী দেখার পর কমিটি গঠন করা হবে।

সচিব আরো বলেন, সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কার, বাতিল বা সংরক্ষণের বিষয়ে সরকার কী ব্যবস্থা নেবে সেটা এই কমিটির প্রতিবেদন পাওয়ার পর সরকার পরবর্তী অবস্থান সবাইকে জানিয়ে দেবে। মন্ত্রীপরিষদ সচিবের নেতৃত্বে গঠিত কমিটিতে চার থেকে পাঁচজন সদস্য থাকবেন।

এর আগে বৃহস্পতিবারের মধ্যে কোটা বাতিলে প্রজ্ঞাপন জারি না হলে রোববার থেকে নতুন করে আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন আন্দোলনকারীরা।

বুধবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে এক মানববন্ধন থেকে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ এ ঘোষণা দেয়।

প্রসঙ্গত, কোটা সংস্কারের দাবীতে দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা আন্দোলন গত মাস থেকে তীব্র আঁকার ধারণ করলে সারা দেশে এ আন্দোলন ছড়িয়ে পড়লে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ১১ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী সংসদে কোটা বাতিলের ঘোষণা দেন।

এরপর আন্দোলনকারীরা কোটা বাতিলের প্রজ্ঞাপন না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিত করেন। বর্তমানে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে ৫৫ শতাংশ নিয়োগ হয় অগ্রাধিকার কোটায়। বাকি ৪৫ শতাংশ নিয়োগ হয় মেধা কোটায়।

তবে কোটায় কোন পদ যোগ্য প্রার্থীর অভাবে পূরণ করা না গেলে মেধা তালিকা শীর্ষে অবস্থানকারী প্রার্থীদের মধ্যে থেকে পূরণ করা হবে বলে গত মাসে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছিল জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *