Monday, January 20

ঘুম বেশি প্রয়োজন কার



সৃষ্টির রহস্য থেকে নারী ও পুরুষদের মধ্যে বিভিন্ন ধরনের পার্থক্য রয়েছে। নারীদের আচরণ, কথা, কণ্ঠের স্বর, হাঁঠাচলা থেকে শুরু করে সব কিছুতে পার্থক্য বিদ্যমান। তবে ঘুমে নয় কেন। আপনি জানেন কি পুরুষের তুলনায় নারীদের বেশি সময় ঘুমের প্রয়াজন।

নারী ও পুরুষের শারীরিক চাহিদা যে আলাদা হয়। তা সবারই জানা। যেমন, পুরুষের তুলনায় মহিলাদের ঠাণ্ডা বেশি লাগে। তেমনই, ঘুম ব্যাপারটি পুরুষের তুলনায় নারীদের বেশি প্রয়োজন হয়।

সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ইংল্যান্ডের লবরো ইউনিভার্সিটির ‘স্লিপ রিসার্চ সেন্টার’-এর সমীক্ষায় এমনই তথ্য সামনে এসেছে। সেখানে বলা হয়েছে, নারীদের ঘুমের প্রয়োজন বেশি হওয়ার মূল দুটি কারণ—

কাজের রেশ

ইংল্যান্ডের লবরো ইউনিভার্সিটির ‘স্লিপ রিসার্চ সেন্টার’-এর সমীক্ষায় জানানো হয়েছে যে, সারা দিনের কাজের রেশ কাটাতে নারীদের মস্তিষ্ক বেশি সময় নেয়। তাই পুরুষদের তুলনায় নারীদের ঘুমের প্রয়োজন বেশি।

জেগে থাকলে নারীদের মস্তিষ্ক বেশি কাজ করে

সমীক্ষায় দেখা গেছে জেগে থাকা অবস্থায়, পুরুষের তুলনায় মহিলাদের মস্তিষ্ক বেশি কাজ করে। তাই পুরুষদের তুলনায় নারীদের ঘুমের প্রয়োজন বেশি।

তবে আপনি যদি ঠিকমতো না ঘুমান তবে ৫ বিপদ হতে পারে আপনার।

আসুন জেনে নেই নারীদের বেশি সময় ঘুমানোর প্রয়োজন। আর তা না হলে কী ক্ষতি হতে পারে—

৩০ থেকে ৬০ বয়সী নারী

৩০ থেকে ৬০ বছরের নারীদের, গড়ে ৬ থেকে ৭ ঘণ্টা ঘুমের প্রয়োজন। এমনই কথা বলছে ‘ন্যাশনাল স্লিপ ফাউন্ডেশন’।

বয়ঃসন্ধির সময়

শুধু বয়ঃসন্ধির সময়েই নয়, মহিলাদের শরীরে হরমোনের পরিবর্তন ঘটে অনেক কারণেই। যেমন, মাসিক ঋতুস্রাব, গর্ভাবস্থা ও মেনোপজের সময়েও। এই হরমোনাল চেঞ্জের সময় মহিলাদের শরীর রেস্টে থাকলে ভালো হয়।

নারীরা বেশি কাজ করে

যে কোনও পুরুষের তুলনায়, নারীরা বেশি কাজ করে। বাড়ির কাজের পাশাপাশি চাকরিও সামলাতে হয় তাদের। ‘মাল্টিটাসকিং’ করে বলে মহিলাদের ব্রেনও বেশি কাজ করে। ফলে মস্তিষ্ককে বিশ্রাম দিতে মহিলাদের ঘুমনোটা খুবই দরকার।

ওজন বৃদ্ধি

নারীদের ঘুম কম হলে ওজন বৃদ্ধি পায় খুব তাড়াতাড়ি। কারণ, ঘুম কম হলে, স্ট্রেস হরমোন কর্টিসলের নিঃসরণ বেশি পরিমাণে হয়। এর ফলে খিদে বেড়ে যায়। এবং সঙ্গে সঙ্গে ওজনও।

মেজাজ খিটখিটে

সারা দিনের নানা কাজের ফাঁকে অনেক সময়েই নিজের কথা ভুলে যান নারীরা। সংসার সামলে, চাকরি সামলে প্রয়োজনীয় ঘুমের সময় বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই কমে যায়। এর ফলে, নারীরা অনেক সময়েই বেশ খিটখিটে হয়ে যায়।

গবেষকদের মতে, এই পাঁচটি কারণই শুধু নয়, মহিলাদের যে বেশি ঘুমের প্রয়োজন তার জন্য রয়েছে আরও অনেক কারণ। তবে এই ‘বেশি সময়’টা মাত্র ২০ মিনিট, বলছেন গবেষকরা। অর্থাৎ, আপনার পুরুষ সঙ্গীটির তুলনায় একস্ট্রা ২০ মিনিট ঘুমোতে পারলেই নারীদের জীবন হবে সুখের।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *