Sunday, January 19

পাকিস্তানের তত্ত্বাবধায়ক প্রধানমন্ত্রী নাসিরুল মুলক



পাকিস্তানের তত্ত্বাবধায়ক প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেশটির সাবেক প্রধান বিচারপতি নাসিরুল মুলকের নাম ঘোষণা করা হয়েছে।

সোমবার (২৮ মে) রাজধানী ইসলামাবাদে এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষণা দেন বিরোধীদলীয় নেতা খুরশিদ শাহ। এ সময় প্রধানমন্ত্রী শহিদ খান আব্বাসী ও সংসদের স্পিকার আয়াজ সাদিক উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকের পর সংবাদ সম্মেলনে বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী শাহিদ খাকান আব্বাসি ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন দেশটির জাতীয় পরিষদের স্পিকার আইয়াজ সাদিক।

বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী আব্বাসি অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, ‘অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী হিসেব উত্থাপিত প্রত্যেকের বিষয়েই আলোচনা হয়েছে।

কিন্তু তার বিষয়ে আমাদের কারও কোনও আপত্তি নেই। এছাড়াও তিনি বলেন, অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তিনি দেশের ও গণতন্ত্রের পক্ষে কাজ করবেন।’

ঠিক তারপরই প্রধানমন্ত্রী আব্বাসি বিরোধী দলীয় নেতা খুরশিদ শাহকে অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রীর নাম ঘোষণা করতে অনুরোধ করেন।

খুরশিদ শাহ তার ঘোষণায় বলেন, ‘আমরা একটি গণতান্ত্রিক সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এই সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রী এবং স্পিকারকে অশেষ ধন্যবাদ। আমি যার নাম ঘোষণা করতে যাচ্ছি, তিনি খুবই সম্মানীয় ব্যক্তি। তিনি হচ্ছেন আমাদের প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি নাসিরুল মুলক। তিনি যখন প্রধান বিচারপতি ছিলেন, তখন বিচার বিভাগে ঐতিহাসিক ভূমিকা পালন করেছিলেন।’

২৫ জুলাই সাধারণ নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা পর্যন্ত তিনিই প্রধানমন্ত্রী পদে থাকবেন। তবে অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন তিনি দেশটির প্রধানমন্ত্রী হিসেবে কোনও কাজই করতে পারবেন না৷ কেননা পাকিস্তানের সংবিধান অনুযায়ী, অন্তর্বর্তী প্রধানমন্ত্রীর কোনও গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা থাকে না।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *