Saturday, January 18

বিশ্বকাপ টেলিভিশনে দেখতে চাই না: নেইমার



স্পোর্টস ডেস্ক :
রাশিয়া বিশ্বকাপ শুরু হতে দুইমাসেরও কম সময় হাতে আছে। তার আগে এই গুরুত্বপূর্ণ সময়ে ব্রাজিলের সবচেয়ে বড় তারকা নেইমার ইনজুরিতে আক্রান্ত। সর্বশেষ খবরে জানা গেছে, মে মাসের মাঝামাঝি পর্যন্ত অন্তত মাঠে ফেরার কোন আশা নেই ব্রাজিল সুপারস্টারের।পায়ের অস্ত্রোপচারের পরে আগামী ১৭ মে সর্বশেষ মেডিকেল পরীক্ষা করা হবে জানিয়ে নেইমার বলেছেন, রাশিয়া বিশ্বকাপটা তিনি টিভির সামনে বসে দেখতে চান না। দলকে চ্যাম্পিয়ন করতে চান।

সাও পাওলোতে এক সংবাদ সম্মেলনে প্যারিস সেইন্ট-জার্মেই ও ব্রাজিলিয়ান এই তারকা ফরোয়ার্ড বলেন, ‘এখন পর্যন্ত ওই তারিখটি নির্ধারিত রয়েছে। ঐ দিনই শেষ পরীক্ষা করা হবে। আশা করছি ঐদিনই আমি খেলার ছাড়পত্র পাব। এরপর দেখা যাক কী হয়। সবকিছুই পায়ের উন্নতির উপর নির্ভর করছে।’

ইতোমধ্যেই নেইমার বিহিন পিএসজির এক মৌসুমে পরে লিগ শিরোপা পুনরুদ্ধার নিশ্চিত হয়েছে। আগামী ১৯ মে লিগের শেষ ম্যাচে কায়েনের মুখোমুখি হবে পিএসজি। এ ম্যাচে বিশ্বের সবচেয়ে দামী ফুটবলারের মাঠে ফেরার আশা করা হচ্ছে। যদিও এখন সকলের দৃষ্টি ব্রাজিলের হয়ে বিশ্বকাপের দলে নেইমারের ফিরে আসা। আগামী ১৭ জুন রোস্তভে সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করবে ব্রাজিল।

বিশ্বকাপকে স্বপ্নের টুর্নামেন্ট হিসেবে অভিহিত করে নেইমার বলেছেন, ‘আশা করছি টেলিভিশনে আমাকে বিশ্বকাপ দেখতে হবে না। এটা আমি চাই না। এখনো আমার সামনে প্রস্তুতির যথেষ্ঠ সময় রয়েছে। আশা করছি এই সময়ের মধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠতে পারব। ইতোমধ্যেই আমি আগের তুলনায় অনেক ভালো অনুভব করছি।’

গত ২৫ ফেব্রুয়ারি লিগ ওয়ানে মার্সেইর বিপক্ষে ম্যাচে ডান পায়ে আঘাত পান ২৬ বছর বয়সী নেইমার। এরপরই তিনি দেশে ফিরে আসেন ও অস্ত্রোপচারের পর বর্তমানে তিনি বিশ্রামে রয়েছেন। গত ৩ মার্চ তার পায়ে সফল অস্ত্রোপচার করেন ব্রাজিল জাতীয় দলের চিকিৎসক রডরিগো লাসমার। তখনই বলা হয়েছিল পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠতে কমপক্ষে আড়াই থেকে তিন মাস সময় লাগবে।

তার অনুপস্থিতিতে ইতোমধ্যেই রিয়াল মাদ্রিদের কাছে পরাজিত হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ১৬ থেকে বিদায় নিয়েছে পিএসজি।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *