Tuesday, January 21

মুক্তিযোদ্ধাকে এ কেমন রাষ্ট্রীয় সম্মাননা!



খাটিয়ার উপর রাখা একটি মরদেহ। মরদেহটি একজন মুক্তিযোদ্ধার। মরদেহের পাশে পুলিশ, প্রশাসনের কর্মকর্তাসহ অনেকে। দাঁড়িয়ে মুক্তিযোদ্ধাকে রাষ্ট্রীয় সম্মান প্রদর্শন করছেন তাঁরা। অথচ মরদেহটি বাঁশের চাটাই দিয়ে মোড়ানো। নেই জাতীয় পতাকা।

এমন ঘটনা ঘটেছে পাবনার বেড়া উপজেলার। এই উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা তাহের উদ্দিন সরকার গত ১৮ মে রাতে মারা যান। ১৯ মে তাঁর দাফন সম্পন্ন হয়। কিন্তু শেষযাত্রায় জাতীয় পতাকার সম্মান জোটেনি তাঁর!

মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যুতে মরদেহ জাতীয় পতাকায় ঢেকে রাষ্ট্রীয় সম্মান প্রদর্শনের বিধান থাকলেও এক্ষেত্রে তা মানা হয়নি।

তবে বিষয়টিকে অনিচ্ছাকৃত ভুল বলে দাবি করেছেন প্রশাসনের স্থানীয় কর্মকর্তা।

মুক্তিযোদ্ধা তাহের উদ্দিন সরকারকে রাষ্ট্রিয় সম্মান (গার্ড অব অনার) প্রদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দায়িত্বে থাকা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহবুব আহসান।

তিনি সিলেটটুডে টোয়েন্টিফোরকে বলেন, এসব আয়োজন সাধারণ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের উপজেলা কমান্ড করে থাকে। কিন্তু এক্ষেত্রে তারা একটি ভুল করে ফেলেছেন। মরদেহকে পতাকা ঢাকতে ভুল হয়ে গেছে।

তিনি বলেন, গার্ড অব অনার প্রদানকালে আমি ছিলাম। ৩০/৪০জন মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন। পুলিশ ছিলো। আরো অনেকেই ছিলেন। কিন্তু এই ভুলটি কারো চোখেই পড়েনি। এটি অনিচ্ছাকৃত ভুল বলে উল্লেখ করেন তিনি।

তবে মুক্তিযোদ্ধার সাথে এমন আচরণে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অনেকে। মুক্তিযোদ্ধার মরদেহের চাটাইয়ে মোড়া ছবি ফেসবুকে শেয়ার দিয়ে ক্ষোভ জানিয়েছেন তাঁরা। এমন আচরণের মাধ্যমে সম্মাননা জানানোর নামে মুক্তিযোদ্ধাকে অসম্মান করা হয়েছে বলে অভিমত তাদের।

সিরাজুদ্দৌলা সিরাজ নামে একজন ফেসবুকে চাটাইয়ে মোড়া মুক্তিযোদ্ধার মরদেহের ছবি যুক্ত করে ক্ষোভ জানিয়ে লিখেছেন- এমন আচরণের জন্য বেড়ার ইউএনও, ওসির স্ট্যান্ড রিলিজ চাই। যাতে অদূর ভবিষ্যতে কেউ আর এই ধরনের কাজ করার সাহস না পায়।

এ ব্যাপারে বেড়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার ইছহাক আলী বলেন, তাড়াহুড়া করতে গিয়ে এই ভুল হয়ে গেছে। এটা নিয়ে এতো আলোচনার কিছু নাই।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *