Sunday, January 19

১৪ মে শ্রীমঙ্গলে চালু হচ্ছে দেশের দ্বিতীয় চা নিলাম কেন্দ্র



দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর অবশেষে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে চালু হচ্ছে দেশের দ্বিতীয় চা নিলাম কেন্দ্র।

১৪ মে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে পরীক্ষামূলকভাবে শুরু হতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক চা নিলাম কেন্দ্রের কার্যক্রম। টি প্ল্যান্টার্স অ্যান্ড ট্রেডার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (টিপিটিএবি) সদস্য সচিব জহর তরফদার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

২০১৭ সালের ৮ ডিসেম্বর মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে দেশের দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক চা নিলাম কেন্দ্রের উদ্বোধন হয়। তবে এ কেন্দ্রে এতদিন কোনো নিলাম অনুষ্ঠিত হয়নি। এবার সেই প্রতীক্ষার অবসান হতে যাচ্ছে। টি ট্রেডার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টিটিএবি)’র পরিচালনায় এ কেন্দ্রে পরপর তিনটি আন্তর্জাতিক নিলাম অনুষ্ঠিত হবে। এ সময় চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত চায়ের আন্তর্জাতিক নিলাম বন্ধ রাখা হবে। টি সেলস কো-অর্ডিনেশন কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

পরীক্ষামূলক নিলামের পর পর্যালোচনা শেষে দেশের দ্বিতীয় চা নিলাম কেন্দ্রের পরবর্তী কার্যক্রম বিষয়ক সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব শুভাশিস বসুর সভাপতিত্বে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে ১০ এপ্রিল এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

এতে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ চা বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মো. জাহাঙ্গীর আল মুস্তাহিদুর রহমান, চা বোর্ডের সদস্য (অর্থ ও বাণিজ্য) মো. ইরফান শরীফ, কমিটির সদস্য সচিব ও চা বোর্ডের উপপরিচালক (বাণিজ্য) মুহাম্মদ মদহুল কবীর চৌধুরী, টিটিএবির সহসভাপতি মো. ইউসুফ এবং শ্রীমঙ্গলে চায়ের নিলাম আয়োজনে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান টি প্ল্যান্টার্স অ্যান্ড ট্রেডার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (টিপিটিএবি) সদস্য সচিব জহর তরফদার।

বৈঠকে সরকারের প্রতিশ্রুতি মোতাবেক এ বছরই শ্রীমঙ্গলের নিলাম কেন্দ্রে চায়ের আন্তর্জাতিক নিলাম আয়োজনের সিদ্ধান্ত হয়। ১৪ মে অনুষ্ঠিত হবে প্রথম নিলাম। পরের দুটি নিলাম অনুষ্ঠিত হবে ২৬ জুন ও ১৭ জুলাই। এ কারণে চট্টগ্রামে পূর্বনির্ধারিত মৌসুমের ৫, ১০ ও ১৮ নম্বর আন্তর্জাতিক নিলাম অনুষ্ঠিত হবে না।

এছাড়া চট্টগ্রামে প্রথাগতভাবে সপ্তাহের প্রতি মঙ্গলবার চায়ের আন্তর্জাতিক নিলাম অনুষ্ঠিত হলেও শ্রীমঙ্গলে তিনটি নিলাম হবে বুধবারে। এ বিষয়ে টিটিএবির সহসভাপতি মো. ইউসুফ বলেন, ‘শ্রীমঙ্গলের নিলাম কেন্দ্রে আন্তর্জাতিক নিলাম আয়োজনের দায়িত্ব পেয়েছে টি প্ল্যান্টার্স অ্যান্ড ট্রেডার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ। এখানে তিনটি আন্তর্জাতিক নিলামের পর পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে দেশের দ্বিতীয় নিলাম কেন্দ্রের পরবর্তী কার্যক্রম সম্পর্কে সিদ্ধান্ত নেবে চা বোর্ড।’

এদিকে, দেশের দ্বিতীয় নিলাম কেন্দ্রের উদ্বোধনের পর চা বোর্ডের পক্ষ থেকে মৌলভীবাজারে পাঁচটি ব্রোকার হাউজের লাইসেন্স ইস্যু করা হয়েছে। শ্রীমঙ্গলে চা বিক্রির জন্য অনুমোদিত ব্রোকার্স প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে রয়েছে জালালাবাদ টি ব্রোকার্স, এসটি ব্রোকার্স লিমিটেড, এসটিএলটি ব্রোকার্স লিমিটেড, গ্রেটার সিলেট টি ব্রোকার্স লিমিটেড ও শ্রীমঙ্গল টি ব্রোকার্স লিমিটেড।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *