Sunday, January 19

Day: May 7, 2018

কেন দূতাবাস সরিয়ে নিলো যুক্তরাষ্ট্র?

কেন দূতাবাস সরিয়ে নিলো যুক্তরাষ্ট্র?

প্রবাস
আগামী ১৪ মে জেরুজালেমে নতুন দূতাবাস চালু করছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। ওয়াশিংটনের এ পদক্ষেপে ইসরায়েল খুশি হলেও উদ্বেগের মধ্যে পড়েছেন ফিলিস্তিনিরা। সোমবার জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাসমুখী রোড সাইন বসানো হয়েছে। আগামী সপ্তাহে ইসরায়েলের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিনে নতুন মার্কিন দূতাবাসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সূচি নির্ধারণ করা হয়েছে। কয়েক দশকের মার্কিন নীতি লঙ্ঘন করে গত বছর দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেন। তার ওই ঘোষণার পর জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস চালুর এ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। ট্রাম্প বলেছেন, তার প্রশাসনের শান্তি প্রস্তাবনা কাজ করছে এবং জেরুজালেমকে আমেরিকার অন্যতম ঘনিষ্ঠ মিত্র দেশের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার সিদ্ধান্ত শান্তি আলোচনার কঠিন অংশ। মার্কিন প্রেসিডেন্টের এ ঘোষণায় ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়া
যুক্তরাষ্ট্র চুক্তি বাতিল করলে যুদ্ধ হবে : ফ্রান্স

যুক্তরাষ্ট্র চুক্তি বাতিল করলে যুদ্ধ হবে : ফ্রান্স

প্রবাস
ব্রিটেনের পর ফ্রান্সও এবার ইরানের সঙ্গে পরমাণু সমঝোতা রক্ষার পক্ষে দাঁড়াল। স্পষ্ট হুঁশিয়ারি দিয়ে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইম্মানুয়েল ম্যাঁক্রো বলেন, ২০১৫ সালে  সই হওয়া ইরান চুক্তি মানতেই হবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে। যদি তা না হয়, তাহলে যুদ্ধ বেধে যাবে। তিনি বলেছেন ফ্রান্স আশা করে যুক্তরাষ্ট্র যুদ্ধ চায়না। আর তাই ইরানের সঙ্গে করা চুক্তি বাতিলের পথে হাঁটবে না তাঁরা। জার্মানির একটি পাক্ষিক পত্রিকায় সাক্ষাৎকারে একথা জানিয়েছেন  ফারসি প্রেসিডেন্ট। ২০১৫ সালে সুইজারল্যান্ডে চীন, রাশিয়া, ফ্রান্স, ব্রিটেন, জার্মানি ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র- এই ছয়টি দেশ ইরানকে পারমাণবিক অস্ত্র বানানোর কর্মসূচি থেকে সরে আসার আবেদন করে। একইসঙ্গে বিশ্বের গঠনমূলক অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিতে ইরানকে তেল উৎপাদন ও অন্যান্য শিল্পে গুরুত্ব দেওয়ার কথা বলে। এজন্য ইরানকে ১১০ বিলিয়ন ডলার দেওয়ার প্রস্তাব দেয় ও
‘বিদেশ গিয়ে আমার মতো কোনো নারী যেন আর নির্যাতিত না হয়’

‘বিদেশ গিয়ে আমার মতো কোনো নারী যেন আর নির্যাতিত না হয়’

সিলেট
মাসিক ১৩ হাজার টাকা বেতনে গৃহকর্মী হিসেবে চার বছর আগে কুয়েত গিয়েছিলেন সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার চারিকাটা ইউনিয়নের ফাতেমা বেগম। সেখানে তিনবছর থেকেও প্রাপ্য বেতন পাননি তিনি। উল্টো নানা নির্যাতনের শিকার হতে হয়েছে তাকে। সিলেটে আয়োজিত 'বৈশ্বিক উন্নয়ন এজেন্ডার আলোকে অভিবাসন চ্যালেঞ্জ: প্রসঙ্গ বাংলাদেশ'- শীর্ষক নাগরিক সংলাপে এসে কাজের জন্য বিদেশে গিয়ে নির্যাতিত হওয়ার কথা তুলে ধরেন ফাতেমা। তিনি বলেন, সে দেশে যাওয়ার পরই আমার মোবাইল ফোন ও পাসপোর্ট নিয়ে যাওয়া হয়। বাসায় সকাল ৬ টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত কাজ করতে হতো। কিন্তু কোনো টাকা দিতো না। আরও নানা মানসিক নির্যাতন করতো। বাংলাদেশে আসতে চাইলে পুলিশের হাতে ধরিয়ে দেওয়ার ভয় দেখাত। দেশে আমার পরিবার ও সন্তানরা টাকা পাঠানোর কথা বলতো। কিন্তু আমি টাকা পাঠাতে পারতাম না। এ ব্যাপারে কফিলের সাথে যোগাযোগ করলে কফিল হুন্ডির মাধ্যমে টাকা পাঠিয
সাপ দেখা যায় না কিন্তু কামড়ায়!

সাপ দেখা যায় না কিন্তু কামড়ায়!

এক্সক্লুসিভ
আলমডাঙ্গা উপজেলার বলেশ্বরপুর গ্রামে অদৃশ্য সাপের উৎপাত দেখা দিয়েছে। সম্প্রতি বেশ কয়েকজনকে সাপে দংশন করেছে বলে গুজব ছড়িয়ে পড়ে। তবে সাপের দংশনে কারো মারা যাওয়ার খবর পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় গ্রামে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। গ্রামের মুক্তা, রুনা, বিজরি, মিম, জিনজিরা, চন্দন, আতিয়ার, মামুন, বায়োজিত, সাজিদসহ কমপক্ষে ২৫ জন অদৃশ্য সাপের কামড়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে। তারা জানায়, রাতের অন্ধকারে তাদের সাপে কামড়েছে। কেউ কেউ বলে মাঠে কাজ করার সময় তাদের সাপে কামড়েছে। যারা সাপের কামড়ে অসুস্থ হয়েছে বলে দাবি করছে, তাদের শরীরে দংশনের কোনো চিহ্ন পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে তাদের যুক্তি, গ্রামে জিনসাপ এসেছে। এ কারণে পায়ে কোনো দাগ থাকছে না। তবে পা ঝিনঝিন করছে। আইলহাস ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য শিমুল হোসেন মল্লিক জানান, এক সপ্তাহ আগে থেকে গ্রামে এ অবস্থা শুরু হয়েছে। হঠাৎ কারো সন্দেহ হচ্ছে তাকে সাপে কামড়েছে
“টাকা বা কাজের বিনিময়ে কারও সাথে রাত কাটাইনি”

“টাকা বা কাজের বিনিময়ে কারও সাথে রাত কাটাইনি”

বিনোদন
বাংলাদেশের মিডিয়া ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় মুখ মডেল ও অভিনেত্রী সাদিয়া জাহান প্রভা। মিডিয়া জগতে তার প্রবেশ মডেলিংয়ের মাধ্যমে। ব্যক্তিগত কিছু ঘটনার কারণে দীর্ঘ সময় পর্দার বাইরে থাকার পর বেশ কিছুদিন ধরে আবারও নিয়মিত কাজে ফিরেছেন তিনি। দীর্ঘ বিরতির পর অভিনয়ে ফিরলেও এখনো নিজের অতীতের জন্য তাকে পড়তে হয় বিব্রতকর পরিস্থিতিতে। একটা অনিচ্ছাকৃত ভুলের জন্য ভিত্তিহীন নানা গুজবের সম্মুখীন হতে হয় এই অভিনেত্রীকে। তাই এসব থেকে মুক্তি পেতে শনিবার বিকেলে নিজের ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে তাকে বাঁচতে দেয়ার আকুতি জানান প্রভা। ফেসবুকে দেয়া প্রভার সেই স্ট্যাটাসটি পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হল- ‘আমি সাদিয়া জাহান প্রভা। জীবনে কোনোদিন মাদক সেবন করি নাই। টাকা বা কাজের বিনিময়ে কারও সাথে রাত কাটাই নাই। সজ্ঞানে কোনোদিন কারও ক্ষতি করি নাই। একটা সশিক্ষিত পরিবারের সন্তান আমি। জীবনে অনেক বড় বড় পরীক্ষা দ
ছেলের সঙ্গে মাও পাস!

ছেলের সঙ্গে মাও পাস!

এক্সক্লুসিভ
পটুয়াখালীর বাউফলে এবার মা ও ছেলে একসঙ্গে দাখিল পাস করেছেন। মা পেয়েছেন জিপিএ ৩.৬০ ও ছেলে পেয়েছে জিপিএ ৪.২৮। কৃতকার্য হওয়া মায়ের নাম জেসমিন আক্তার। আর ছেলের নাম মো. সাইফুল্লাহ বিন জাকারিয়া। জানা গেছে, জেসমিন আক্তারের দুই মেয়ে ও এক ছেলের মধ্যে সাইফুল্লাহ বিন জাকারিয়া সবার ছোট। স্বামীর নাম মো. জাকারিয়া খান। তাদের বাড়ি উপজেলার কালিশুরী বন্দর এলাকায়। জেসমিন আক্তারের বড় মেয়ে সাইয়েদা আক্তার প্রাণিবিদ্যা বিষয়ে সম্মান তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ও ছোট মেয়ে আফছা বেগম অর্থনীতি বিষয়ের সম্মান প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী। জেসমিন আক্তার ষষ্ঠ শ্রেণি থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত উপজেলার কালিশুরী ইউনিয়নের রাজাপুর ছালেহিয়া দাখিল মাদ্রাসায় নিয়মিত শিক্ষার্থী হিসেবে পড়াশোনা করেন। এখান থেকেই এ বছর দাখিল পরীক্ষায় অংশ নেন। আর ছেলে মো. সাইফুল্লাহ বিন জাকারিয়া একই উপজেলার কেশবপুর ইউনিয়নের
ভোটে জিতলেন কিন্তু দাঁত হারালেন

ভোটে জিতলেন কিন্তু দাঁত হারালেন

প্রবাস
নির্বাচনে জয়লাভ করেছেন বটে, তবে হারিয়েছেন নিজের দাঁত।  সাউথ-ওয়েস্ট জার্মানির মেয়র নির্বাচনে জয় লাভ করেছেন মার্টিন হম। সেই সাফল্যই উদযাপন করছিলেন তিনি। হঠাৎ এক লোক এসে তার মুখে আঘাত করে। আক্রমণে ৩৩ বছর বয়সী স্বতন্ত্র প্রতিযোগী হর্নের নাক ভেঙে যায়, ভেঙে যায় একটি দাঁতও। আক্রমণের পরে হাসপাতালে চিকিৎসাও নিতে হয় তাকে। এই ঘটনায় ৫৪ বছর বয়সী একজনকে আটক করা হয়। তবে আক্রমণটি রাজনৈতিক নয় বলে দাবি করা হয়েছে। নির্বাচনে জয়ের পরে কয়েকটি সংবাদমাধ্যমকে ইন্টারভিউ দেন হর্ন। তারপর প্রায় ৩০০ জন সমর্থকের সঙ্গে জয় উদযাপন করছিলেন তিনি। সেই সময়েই একজন এসে তার সঙ্গে সেলফি তুলতে চায়। স্থানীয় গণমাধ্যম জানায়, হঠাতই ওখানে কিছু বিরোধ দেখা দেয়। সেই লোকটি মার্টিন হর্নের মুখে আঘাত করে। প্রাথমিক পুলিশ তদন্ত বলছে, হামলাটি উদ্দেশ্যপ্রণোদিত নয়। আক্রমণকারীর মানসিক অসুস্থতা রয়েছে। ঘটনার প
কালবৈশাখী ঝড়ে ১৮ ঘণ্টা বিদ্যুৎবিহীন কমলগঞ্জ

কালবৈশাখী ঝড়ে ১৮ ঘণ্টা বিদ্যুৎবিহীন কমলগঞ্জ

সিলেট
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানে পাহাড়ি এলাকায় ৩৩ হাজার কেভি প্রধান বিদ্যুৎ লাইনের উপর গাছ পড়ে বিদ্যুৎ সঞ্চালন ব্যবস্থা ব্যাহত হয়েছে। বিদ্যুৎ ব্যবস্থা ব্যাহত হওয়ায় প্রায় ১৮ ঘণ্টা বিদ্যুৎবিহীন থাকে কমলগঞ্জ উপজেলা। সেই সাথে চা কারখানায় উৎপাদনেও বিঘ্ন ঘটে। রোববার রাতের কালবৈশাখী ঝড়-বৃষ্টির পর সকাল ১০টায় কমলগঞ্জ উপজেলা বিদ্যুৎ সরবরাহ চালু হওয়ার এক ঘণ্টা পর বেলা ১১টায় ফের শুরু হয় ঝড়-বৃষ্টি। উপজেলা বিদ্যুৎবিহীন থাকায় ভোগান্তির শিকার হন গ্রাহকরা। এ সময় লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের ভিতর পাহাড়ি এলাকায় একটি বড় গাছ ভেঙ্গে পড়ে ৩৩ হাজার কেভির প্রধান বিদ্যুৎ লাইনের ওপর। বৃষ্টি থামার পর বিদ্যুৎকর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে গাছ কেটে সরিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত বিদ্যুৎ লাইন মেরামত করলে বিকাল ৫টায় বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হয়। এ সময়ে চা বাগানে কারখানাসমূহে চায়ের উৎপাদনে বিঘ্ন ঘটে
সিলেটের ‘মানিক ডাকাত’ নারায়নগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার

সিলেটের ‘মানিক ডাকাত’ নারায়নগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার

সিলেট
সিলেটের বিভিন্ন ডাকাতি মামলার আসামী মানিক ওরফে মো ইউনুছ হাওলাদার কালু (২৮) কে নারায়নগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার করেছে সিলেট মহানগর পুলিশ। শনিবার তাকে গ্রেপ্তারের পর রোববার আদালতে হাজির করা হলে সে নগরীর খাদিমপাড়া ও আরামবাগে দুটি ডাকাতির সাথে সম্পৃক্ততা স্বীকার করে জবানবন্দি দেয়। মানিক দুর্দর্ষ ডাকাত ও একাধিক ডাকাতি মামলার আসামী বলে পুলিশ জানিয়েছে। পুলিশ জানায়, গত ৯ এপ্রিল ভোরে শাহপরাণ উপশহর আবাসিক এলাকার মো. আব্দুল মজিদের বাসায় ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এসময় ডাকাত আরিফুল ইসলাম সজীব ওরফে মিরাজ (২৬) কে স্থানীয় জনতা আটক করে গনপিটুনি দেয়। পরবর্তীতে মো. আব্দুল মজিদ (৪১) বাদী হয়ে শাহপরাণ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। গত ১১ এপ্রিল আরিফুল ইসলাম সজীব ওরফে মিরাজ আদালতে আব্দুল মজিদের বাসায় ডাকা্তির ঘটনা স্বীকার করে। এছাড়া গত ১৮মার্চ আরামবাগের কাজী আব্দুল মুকিতের বাসায় ডাকাতির সাথে জড়িত থাকার ক
‘আইন ও মানবাধিকারের প্রতি ন্যূনতম শ্রদ্ধাবোধ থাকলে খালেদাকে মুক্তি দিতে  হবে’

‘আইন ও মানবাধিকারের প্রতি ন্যূনতম শ্রদ্ধাবোধ থাকলে খালেদাকে মুক্তি দিতে হবে’

সিলেট
বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সিলেট বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. সাখাওয়াত হাসান জীবন বলেছেন, অবৈধ ফ্যাসিস্ট সরকার রাজনৈতিক প্রতিহিংসার বশবর্তী হয়ে একটি ষড়যন্ত্রমুলক মামলায় ফরমায়েশি সাজা দিয়ে বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে আটকে রেখেই ক্ষান্ত হয়নি, কারাগারে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লেও তিন বারের সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে প্রয়োজনীয় সুচিকিৎসা থেকে বঞ্চিত করে রেখেছে। এর মাধ্যমে সরকার আইন ও মানবাধিকারকে চরমভাবে লঙ্ঘন করছে। সোমবার (৭ মে) বিকেলে বিএনপির কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে কারান্তরীণ বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার নি:শর্ত মুক্তির দাবিতে সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপি আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল পূর্ব সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, বেগম খালেদা জিয়া কোন দুর্নীতি করেননি। শুধুমাত্র রাজনীতির ময়দান থেকে তাঁকে দুরে রাখতেই এই ফরমায়েশি সাজা দেয়া হয