Tuesday, January 28

Day: July 17, 2019

বন্যায় স্বাস্থ্য সমস্যায় যা করতে হবে

বন্যায় স্বাস্থ্য সমস্যায় যা করতে হবে

অন্যান্য
নিউজ ডেস্ক :: প্রায় পুরো দেশে বন্যা দেখা দিয়েছে। অনেকে এলাকায় বাড়িঘর পানির নিচে ডুবে গেছে। বহু মানুষ রাস্তায় আশ্রয় নিয়েছেন। এমন অবস্থায় থাকা খাওয়ার নিশ্চয়তাই জুটছে না অনেকের। বন্যার সময় নানা প্রতিকূলতার সঙ্গে দেখা দেয় বিভিন্ন রোগও। এসব রোগ থেকে বাঁচতে শুরুতেই সতর্কতা প্রয়োজন। বিশেষজ্ঞরা বলেন: বন্যার সময় বিশুদ্ধ খাবার পানির ‍অভাব দেখা দেয়। বন্যার পানিতে থাকা নানা ধরনের রোগ জীবাণু আমাদের শরীরে প্রবেশ করে ডায়রিয়া, কলেরা, টাইফয়েড, আমাশয় ও হেপাটাইটিসের মতো অসুখ হয়ে থাকে। টিউবওয়েলের পানি নিরাপদ। কিন্তু যদি টিউবওয়েলও তলিয়ে যায়, তবে অবশ্যই ফুটিয়ে বা ফিটকিরি দিয়ে পানি পরিষ্কার করে পান করতে হবে। পানি বিশুদ্ধ করার ট্যাবলেটও ব্যবহার করা যায়। বন্যায় চর্মরোগ হতে পারে। যতটা সম্ভব শরীর শুকনো রাখতে হবে। একই গামছা বা তোয়ালে অনেকজন ব্যবহার করবেন না। হাত মুখ মুখ ধোয়া ও গোসলের সময় পরিষ্কার পানি ব্যবহার করত
সিলেটে বিপদসীমার ওপরে নদ-নদীর পানি

সিলেটে বিপদসীমার ওপরে নদ-নদীর পানি

সিলেট
নিউজ ডেস্ক :: সিলেটের সুরমা-কুশিয়ারাসহ বিভিন্ন নদ-নদীর পানি এখনও বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ফলে এখনও প্লাবিত রয়েছে নিম্নাঞ্চল। মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) থেকে বুধবার (১৭ জুলাই) নদীগুলোর পানি কিছুটা কমেছে। অবশ্য কিছুটা বেড়েছে সারি নদীর পানি। সিলেট পানি উন্নয়ন রোর্ডের তথ্য অনুযায়ী, মঙ্গলবার সুরমা নদীর কানাইঘাট পয়েন্টে ১৩ দশমিক ১৭ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে পানি প্রবাহমান ছিল। বুধবার সকাল ৯টা পর্যন্ত ৫ সেন্টিমিটার কমে ১৩ দশমিক ১২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। যা এখনও বিপদসীমার ৮৭ সেন্টিমিটার ওপরে। সুরমা নদী সিলেট পয়েন্টে আগের দিন ১০ দশমিক ৭৩ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল। বুধবার ৭ সেন্টিমিটার কমে ১০ দশমিক ৬৬ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এরপরও বিপদসীমার ৫১ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে পানি প্রবাহমান। জকিগঞ্জের অমলশীদ পয়েন্টে কুশিয়ারা নদীর পানি আগেরদিন ১৬ দশমিক ০৮ সেন্টিমিটার ছিল।